Grameenphone internet offer 2021

 বিশ্ববিদ্যালয়ের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এসএম মনিরুল হাসান প্রথম আলোকে বলেন, সিন্ডিকেট ভ্যাকসিনের এক মাত্রা সাপেক্ষে ২০ অক্টোবর ক্যাম্পাস পুনরায় চালু করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তবে এটিকে চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত বলা যাবে না বলে জানিয়েছেন সিন্ডিকেট সদস্য একেএম মinনুল হক মিয়াজি। তিনি বলেন, সিন্ডিকেটের ক্যাম্পাস খোলার কোনো এজেন্ডা নেই। যাইহোক, 20 অক্টোবর ক্যাম্পাস খোলার বিষয়ে প্রাথমিক আলোচনা হয়েছে, কিন্তু কোন সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি। একাডেমিক কাউন্সিলের একটি এজেন্ডা নিয়ে সিন্ডিকেট আসার পর ক্যাম্পাসটি পুনরায় খোলার সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।


বিজ্ঞাপন


বিজ্ঞাপন


আরেক সিন্ডিকেট সদস্য মো। নাসিম হাসান প্রথম আলোকে বলেন, "বৈঠকে ক্যাম্পাস খোলার বিষয়ে আলোচনা হয়েছে। তবে, আনুষ্ঠানিকভাবে কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি। কোনও এজেন্ডা ছিল না। '


চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে 47 টি বিভাগ এবং 6 টি ইনস্টিটিউট সহ শিক্ষার্থীর সংখ্যা প্রায় 26,000। কে এখন টিকা দিয়েছে এবং কত ডোজ দিয়েছে সে বিষয়ে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ এখন তথ্য সংগ্রহ করছে। আইসিটি সেল সূত্র জানায়, বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষের মাধ্যমে ২,000,০০০ শিক্ষার্থী এই টিকার জন্য নিবন্ধন করেছেন। ইতিমধ্যে 13 হাজার 520 শিক্ষার্থী টিকা সম্পর্কে তথ্য দিয়েছে।


বিজ্ঞাপন


তাদের মধ্যে 4,231 টি দুটি ডোজ নিয়েছে। 2,369 জন এক ডোজ নিয়েছে। 4 হাজার 529 জন নিবন্ধন এবং টিকা দেওয়ার জন্য অপেক্ষা করছে। এবং ২38 জন মানুষ জাতীয় পরিচয়পত্রের অভাবে এবং ভুল জাতীয় পরিচয়পত্রের কারণে নিবন্ধন করতে পারেনি। বাকি শিক্ষার্থীরা এখনো টিকা সম্পর্কে তথ্য দেয়নি। বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য বেনু কুমারের তত্ত্বাবধানে বিভিন্ন বিভাগ থেকে টিকা সংক্রান্ত তথ্য সংগ্রহ করা হচ্ছে।


সিন্ডিকেটের সদস্য অধ্যাপক কাজী এসএম খসরুল আলম কুদ্দুসী প্রথম আলোকে বলেন, করোনা ভ্যাকসিনের 47,000 ডোজ পেতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ে চিঠি পাঠানো হয়েছে। আশা করা যাচ্ছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষকে এই টিকা দেওয়া হবে। যাদের টিকা দেওয়া হয়নি তাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের মেডিকেল সেন্টারে টিকা দেওয়া হবে।

Post a Comment

Previous Post Next Post